বাড়ি খেলাধুলা এক বছরের জন্য অবসরে আর্জেন্টিনার মেসি

এক বছরের জন্য অবসরে আর্জেন্টিনার মেসি

142

স্বপ্নের বিশ্বকাপটা অধরাই থেকে গেল ফুটবলের যাদুকর লিওনেল মেসির। ফুটবলের সবকিছু যার ঝুলিতে তার হাতে এখনো উঠেনি স্বপ্নের বিশ্বকাপ। আগেরবার ফাইনালে গিয়েও ব্যর্থ হয়েছিলেন। আর এবারেতো দ্বিতীয় রাউন্ডের গন্ডিও পার হতে পারেনি। তাই ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার ভরাডুবির পর আরও একবার জাতীয় দল থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিলেন লিওনেল মেসি। তবে এবার নাকি তিনি সাময়িক সময়ের জন্য এই সিদ্ধান্ত নিলেন। টিএনটি স্পোর্টসের মতে, আলবিসেলেস্তাদের হয়ে সরে দাঁড়াচ্ছেন। তবে এখনও তিনি অবসরের ঘোষণা দেননি। দু’বছর আগে কোপা আমেরিকায় টানা দু’বার আর্জেন্টিনা ফাইনালে হেরে যাওয়া অবসর নিয়েছিলেন মেসি। তবে কয়েকমাস পরে ফের দলের সঙ্গে ফেরেন।

এবার জানা যায়, চলতি বছর মেসি ঐতিহ্যবাহী নীল–সাদা জার্সিতে মাঠে নামবেন না। ফিরতে পারেন সামনের বছর। কেননা বিশ্বকাপ শেষে নাকি ভীষণ চাপের মধ্যে সময় যাচ্ছে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকার ওপর। যেখানে ফ্রান্সের বিপক্ষে শেষ ষোলোতে ৪–৩ গোলে হেরে আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয়। আর বিশ্বকাপের আগে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছিল এটাই হয়তো মেসির শেষ বিশ্বকাপ। তবে মেসি অবশ্য রাশিয়ার আসরের আগে এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, বিশ্বকাপ জিততে না পারলেও তিনি অবসর নেবেন না। এমন সিদ্ধান্ত নিলে তরুণ প্রজন্মকে খারাপ বার্তা দেয়া হবে।

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, ২০১৯ কোপা আমেরিকার আগ পর্যন্ত মেসিকে আর আর্জেন্টিনা দলে দেখা না যাবার সম্ভাবনা বেশি। আগামী সেপ্টেম্বরে গুয়াতেমালা ও কলম্বিয়ার বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে দলটি। পরের মাসে সৌদি আরবে ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচটিতেও মেসি থাকবেন না। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন আর একটু চাপ মুক্ত হতে চান। তারপর আবার ফিরবেন আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে। আজেন্টিনার জার্সিটার ওজন একটু বেশি। আর সে কারণেই আরেকটু চাপমুক্ত হয়ে আবার দেশের জার্সিটা গায়ে তুলতে চান মেসি। ২০০৫ সালে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হয় মেসির। যেখানে এখন পর্যন্ত ১২৮ ম্যাচ খেলে রেকর্ড ৬৫টি গোল করেছেন তিনি। খেলেছেন চারটি বিশ্বকাপ। তবে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপকে ঘিরেই হয়তো নতুন পরিকল্পনা করছেন তিনি। বরাবরই মেসির বিপক্ষে একটি অভিযোগ তোরা হয়, আর তা হচ্ছে ক্লাবের জার্সি গায়ে যতটা না সফল তিনি দেশের জার্সি গায়ে ততটাই ব্যর্থ। তারপরও মেসি চান দেশের জণ্য একবার হলেও বিশ্বকাপটা জিততে। আর সে কারণে কাতার বিশ্বকাপেও খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই সুপার স্টার। তিনি বলেন কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত শরীর ফিট থাকলে অবশ্যই খেলব। কারণ বয়স এখনো আমার খেলার মত রয়েছে। কাজেই শেষবার একটা চেষ্টা করে দেখতে চাই। আর সে জন্যই কিনা আগামী একবছর আর্জেন্টিনার হয়ে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেসি। এখন দেখার বিষয় মেসির এই সিদ্ধান্ত তার ক্যারিয়ারে কতটা প্রভাব ফেলে। কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিজের ফর্মটা ধরে রাখতে পারেন কিনা।